দিনাজপুর বার্তা ২৪ | Dinajpur Barta 24

ব্রেকিং নিউজ
দিনাজপুরে জাতীয় পতাকা উত্তোলন দিবস পালিত
মোফাচ্ছিলুল মাজেদ ডিসেম্বর ১৮, ২০২২, ৬:৫৭ অপরাহ্ণ | পড়া হয়েছে ৮০ বার |

দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরে জাতীয় পতাকা উত্তোলন দিবস ১৮ ডিসেম্বর রোববার পালিত হয়েছে। ১৯৭১ সালের ১৮ ডিসেম্বর স্বাধীন দেশে দিনাজপুরে প্রথম গোর-এ-শহীদ বড় ময়দানে আনুষ্ঠানিকভাবে স্বাধীন বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর, মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ও মুজিবনগর সরকারের পশ্চিমাঞ্চলীয় জোন-১ এর চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট এম. আব্দুর রহিম এমপি।
এই দিবসটি উদযাপনে দিনাজপুর ইন্সটিটিউট প্রাঙ্গণে দিনব্যাপী কর্মসূচি গ্রহণ করে এম. আব্দুর রহিম সমাজকল্যাণ ও মুক্তিযুদ্ধ গবেষণা কেন্দ্র। সকাল সাড়ে ১০ টায় প্রধান অতিথি সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও অর্থমন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি সভাপতি আবুল হাসান মাহমুদ আলী এমপি জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে কর্মসুচী শুরু করেন। এরপর জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও এম আব্দুর রহিম এর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।


শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে মুক্তিযোদ্ধা-জনতা সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী এমপি বলেন, একদিনে মুক্তিযুদ্ধ হয় নি। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশে দীর্ঘ দিনের ত্যাগ তিতিক্ষা ও রক্তের বিনিময়ে এ স্বাধীনতা অর্জিত হয়েছে। এই স্বাধীনতাকে ভুলন্ঠিত করতে জাতীয় পতাকা ও স্বাধীনতা কেড়ে নিতে আবারও বিএনপি-জামাত-শিবির ও স্বাধীনতা বিরোধীরা তৎপর হয়ে উঠেছে। স্বাধীনতা বিরোধীদের পরাস্ত করতে নতুন প্রজন্ম ও যুব সমাজকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্ভুত্ব করতে হবে। ১৯৭১ সালে ১৮ ডিসেম্বর এ জেলায় এম আব্দুর রহিম আনুষ্ঠানিক ভাবে পতাকা উত্তোলন করেন। এ পতাকা আজ জানান দিচ্ছে বাঙ্গালী জাতির ভাষা আন্দোলন ও স্বাধীনতা আন্দোলনকে জাগ্রত করতে বঙ্গবন্ধু যে ৬ দফার মুক্তির সনদ বাস্তবায়ন করতে ডাক দিয়েছিলেন সেই পতাকা আজ উজ্জীবিত হয়েছে। এই জাতীয় পতাকা স্বাধীনতা ও স্বার্ভভৌমত্বকে রক্ষা করতে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমাদের সকলকে ঐক্য বদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। আর যেন কোন দিন ক্ষমতায় পাকিস্তানি পেত্মারা আসতে না পারে।
মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, প্রবীন আওয়ামী লীগ নেতা, এম. আব্দুর রহিম সমাজকল্যাণ ও মুক্তিযুদ্ধ গবেষণা কেন্দ্রের সভাপতি অ্যাডভোকেট আজিজুল ইসলাম জুগলুর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন বিশেষ অতিথি হাবিপ্রবির সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক মো: রুহুল আমিন এবং জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের প্রাক্তন চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ সেলিম। এ ছাড়াও বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ ইমদাদ সরকার, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার সৈয়দ মোকাদ্দেস হোসেন বাবলু, এম. আব্দুর রহিম সমাজকল্যাণ ও মুক্তিযুদ্ধ গবেষণা কেন্দ্রের সাধারন সম্পাদক চিত্ত ঘোষ, দিনাজপুর জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক শাহ ইয়াজ দান মার্শাল, জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সুলতানা বুলবুল, খানসামা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক শফিউল আযম চৌধুরী লায়ন।


উপস্থিত ছিলেন, এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডাঃ মোমেনুল হক, উপাধ্যক্ষ সৈয়দ নাদির হোসেন, সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ আবু বক্কর সিদ্দিক, মেডিকেল কলেজের মেডিসিন বিভাগের প্রধান ডাঃ নুরুজ্জামান, সদর উপজেলার সাবেক কমান্ডার লোকমান হাকিম, দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি স্বরুপ বকসী বাচ্চু, সাধারন সম্পাদক শাহীন হোসেন, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি শামীম আলম সরকার বাবু, সাধারন সম্পাদক এনাম উল্ল্যাহ জ্যামী, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মমিনুল ইসলাম, দিনাজপুর সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আলহাজ্ব ওয়াহেদুল আলম আর্টিস্ট, দিনাজপুর বিএমএর সভাপতি ডাঃ ওয়ারেস আলী সরকার, সাধারন সম্পাদক ডাঃ বিকে বোস, জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক তারিকুন বেগম লাবুন, শহর মহিলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক খ্রীষ্টীনা লাভলি দাস, যুগ্ম আহবায়ক সেহেলী আক্তার ছবি, জেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক আনোয়ার হোসেন, শহর যুবলীগের সভাপতি আশরাফুল আলম রমজান, সাধারন সম্পাদক সোহরাব হোসেন প্রমুখ।
এ ছাড়ারও মুক্তিযোদ্ধা-জনতা সমাবেশের পুর্বে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও এম আব্দুর রহিম এর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, জেলা, পৌর ও সদর উপজেলা আওয়ামীলীগ, হাবিপ্রবি প্রগতিশীল শিক্ষক ফোরাম, এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, দিনাজপুর প্রেসক্লাব, সাংবাদিক ইউনিয়ন, সরকারি কলেজ, দিনাজপুর বিএমএ, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষনা পরিষদ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, শহর ও সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ, জেলা ও শহর মহিলা লীগ, যুব মহিলা লীগ, তাঁতী লীগসহ ১২টি ওয়ার্ড ও ১০ টি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ এবং বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও পৌরসভার কাউন্সিলরবৃন্দ। এ ছাড়াও বিভিন্ন স্কুল-কলেজ শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা শ্রদ্ধা জানান।


এ ছাড়া বাংলাদেশ মেডিকেল এ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) দিনাজপুর জেলা শাখার উদ্যোগে বিনামূল্যে ডায়াবেটিস ও চক্ষু পরীক্ষা এবং চিকিৎসা ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী, দিনাজপুর জেলা সংসদের পরিবেশনায় মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক সঙ্গীতানুষ্ঠান পরিবেশিত করে।

এই পাতার আরো খবর -
৩১শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
দিনাজপুর, বাংলাদেশ
ওয়াক্তসময়
সুবহে সাদিকভোর ৫:৩১ পূর্বাহ্ণ
সূর্যোদয়ভোর ৬:৫০ পূর্বাহ্ণ
যোহরদুপুর ১২:১৯ অপরাহ্ণ
আছরবিকাল ৪:১২ অপরাহ্ণ
মাগরিবসন্ধ্যা ৫:৪৮ অপরাহ্ণ
এশা রাত ৭:০৭ অপরাহ্ণ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
সম্পাদকীয়